|

শিশুর ওজন বেড়ে গেলে যা করবেন

Published: Mon, 06 Sep 2021 | Updated: Mon, 06 Sep 2021

করোনাকালে স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকায় অনেক শিশুই ঘরে বসে মুটিয়ে যাচ্ছে। খেলাধুলার অভাব, একই সঙ্গে ঘরে বসে মুখরোচক খাবার খাওয়ায় শিশুরা এখন অতিরিক্ত ওজনে ভুগছে। এমন পরিস্থিতিতে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ছেন অভিভাবকেরা।

করোনা পরিস্থিতিতে শুধু আপনার শিশু নয় বরং অনেকের শিশুই মুটিয়ে গেছে। তাই শিশুর সুস্বাস্থ্য বিবেচনায় তার ডায়েটের দিকে নজর দিতে হবে। প্রয়োজন শরীরচর্চারও। জেনে নিন শিশুর ওজন কমাতে যা করবেন-

১. শিশুকে পুষ্টিকর খাবার খাওয়াতে হবে। অনেক সময় শিশুরা স্বাস্থ্যকর খাবার দেখলে মুখ ফিরিয়ে নেয়। এ কারণে তাদের খাবার মুখরোচকভাবে তৈরি করুন। একই খাবার শিশুকে যদি প্রতিদিন খাওয়ান তাহলে ওই খাবারের প্রতি শিশুর অরুচি চলে যাবে। এ কারণে খাবারে পরিবর্তন আনুন। খাবার সুন্দর করে সাজিয়ে শিশুর সামনে পরিবেশন করুন।

২. শিশুর স্বাস্থ্য ভালো রাখতে তাকে পর্যাপ্ত ফল ও সবজি খাওয়াতে হবে। সবজির ক্ষেত্রে সেদ্ধ করে সামান্য গোলমরিচ ও লেবু দিয়ে দিতে পারেন। শিশু যে ফল খেতে পছন্দ করে সেটি খাওয়ান। যদি একান্তই ফল খেতে না চায়, তাহলে ফলের রস করে দেন। তবে ফলের রসে চিনি ও পানি মেশাবেন না।

৩. শিশুর ওজন কমাতে ফাস্টফুড খাওয়ানো বন্ধ করুন। শিশুর স্বাস্থ্য ভালো রাখতে প্রয়োজনে তার প্রতি কড়া হতে হবে। সে খেতে বায়না করলেও দেওয়া যাবে না।

৪. শিশুদের পানি খাওয়ার প্রতি অনীহা জন্মায়। এ কারণে বেশিরভাগ শিশুই পানিশূন্যতায় ভোগে। তাই অভিভাবকের উচিত প্রতি ঘণ্টায় শিশুকে পরিমাণমতো পানি খাওয়ানো। পরিমাণমতো পানি খেলে শিশুর ওজন কমবে আবার শরীরে অক্সিজেনের ঘাটতিও মিটবে।

৫. সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে ব্যায়াম করার বিকল্প নেই। আপনি যখন ব্যায়াম করবেন শিশুকেও সঙ্গে নিন। প্রয়োজনে দড়ি লাফ, সিঁড়ি দিয়ে ওঠা-নামা ইত্যাদি করাতে পারেন। সকাল-বিকেল শিশুকে সঙ্গে নিয়ে হাঁটতেও পারেন।

৬. আপনার শিশু ঠিকমতো ঘুমাচ্ছে তো? কম ঘুম শিশুর ওজন বাড়িয়ে দেয়। দৈনিক অন্তত ৮ ঘণ্টা ঘুমানোর অভ্যাস করান শিশুকে। কম ঘুমের ফলে শিশুর মেজাজ খিটখিটে হয়ে যায়। একই সঙ্গে অতিরিক্ত খাওয়ার প্রবণতা বাড়ে। দীর্ঘদিন এভাবে চললে শিশু শারীরিকভাবে নিস্তেজ হয়ে পড়তে পারে।

৭. শিশুর বসে থাকার সময় কমিয়ে আনুন। পড়ালেখা বাদে শিশুর ভিডিও গেম খেলা, বসে স্মর্টফোনে চোখ রাখা বা টিভি দেখার সময় কমিয়ে আনুন। শিশু যেন একটানা প্রতিদিন ২ ঘণ্টার বেশি সময় বসে না থাকে সেদিকে খেয়াল রাখুন। এসব নিয়ম মানলে শিশুর ওজন অনেকটাই কমে আসবে।

সূত্র: সিডিসি

আইআর /