|

সেনবাগে গত ১২ দিনে করোনা শনাক্তের হার বেড়েছে ৪ গুণ!

Published: Mon, 17 Aug 2020 | Updated: Mon, 17 Aug 2020

মো. জাহাঙ্গীর আলম, (নোয়াখালী) : নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় স্বাস্থ্যবিধি না মানা ও মাস্ক ব্যবহার না করায় হুহু করে বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। স্বাস্থ্য বিভাগের এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, গত ২৬ মার্চ থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত এই ৫ মাসে সেনবাগে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছিল ১৫০ জন। অপরদিকে, কোরবানির ঈদের পর ৩ আগস্ট থেকে ১৭ আগস্ট পর্যন্ত এখানে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৮০ জনের। 

নতুন ৮০ জনের মধ্যে আছে উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ তাঁর অধীনস্ত ৫ জন, সেনবাগ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ১১ জন, সেনবাগ থানার এসআই ও এএসআইসহ ৫ জন, সেনবাগ হাসপাতালের ডাক্তার ও স্বাস্থ্য সহকারীসহ ৩ জন, নির্বাচন অফিসের ১ জন, এক ইউপি চেয়ারম্যান, ব্যাংকার, ব্যবসায়ী ও সাংবাদিকসহ মোট ৮০ জন। এরমধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে আরো ৫ জনের। ইতোমধ্যে সেনবাগে করোনায় সংক্রমিত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন ১১ জন। যা নোয়াখালী জেলার মধ্যে তৃতীয় স্থানে অবস্থান করছে সেনবাগ

বিষয়গুলো নিশ্চিত করে সেনবাগ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মতিউর রহমান জানান, সেনবাগের লোকজন স্বাস্থ্যবিধি না মানা ও মাস্ক পরিধান না করায় হুহু করে করোনা বিস্তার শুরু করছে। তাই করোনাবিস্তাররোধকল্পে সকলকে বিনা প্রয়োজনে ঘরের বাইর না হতে অনুরোধ করছি। এছাড়াও একান্ত প্রয়োজনে বাড়ির বাইর হলে মাস্ক পরে বাইর  হতে হবে। পরিবারের কারও করোনার লক্ষণ দেখা দিলে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে। এছাড়াও করও জ্বর, সর্দি, কাশি ও গলা ব্যথা দেখা দিলে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ফোন করে টেলিমেডিসিন সেবা গ্রহণ করতে হবে। এছাড়াও করোনা রোগীদের সংস্পর্শ থেকে দূরে থাকতে ও ঘন ঘন হাত ধৌত করতে হবে।

ও/ডব্লিউইউ