|

প্রবাসীর স্ত্রীর লাশ হাসপাতালে ফেলে লাপাত্তা শ্বশুরবাড়ির লোকজন

Published: Wed, 16 Sep 2020 | Updated: Wed, 16 Sep 2020

মোঃ ইমাম জাফর, মাগুরা : জেলার মহম্মদপুর উপজেলার আওনাড়া গ্রামে কেয়া খাতুন (২২) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে তিনটার দিকে খবর পেয়ে তাঁর লাশ হাসপাতাল থেকে মর্গে পাঠায় মহম্মদপুর থানা পুলিশ।

স্থানীয় বাসিন্দাদের সূত্রে জানা যায়, কেয়া খাতুন উপজেলার দীঘা ইউনিয়নের আওনাড়া গ্রামের দুবাই প্রবাসী সজিব শেখের স্ত্রী। শ্বশুরবাড়ির স্বজনেরা তার লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে গেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এক বছর আগে উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের চৌবাড়িয়া গ্রামের ফসিয়ার রহমান মোল্যার মেয়ে কেয়া খাতুনের সাথে একই উপজেলার দীঘা ইউনিয়নের আওনাড়া গ্রামের আবুল শেখের ছেলে সজিব শেখের বিয়ে হয়। বিয়ের তিন মাস পর স্বামী সজিব দুবাই চলে যান। তাদের কোন সন্তান নেই।

প্রতিবেশীরা বলেন, বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বেলা পৌনে একটার দিকে গলায় ওরনা প্যাঁচানো ঝুলন্ত অবস্থায় ঘরে কেয়ার লাশ পাওয়া যায়। পরে তার শ্বশুরবাড়ির স্বজনেরা লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায়।

ও/এসএ/