|

টিকার আবেদন করেননি জবির ৩৫ শতাংশ শিক্ষার্থী

Published: Fri, 11 Jun 2021 | Updated: Fri, 11 Jun 2021

মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ, জবি : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) প্রায় ৩৫ শতাংশ শিক্ষার্থী করোনা টিকার জন্য আবেদন করেনি। শুক্রবার (১১ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের নেটওয়ার্ক এন্ড আইটি দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার আচার্য্য এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আইটি দপ্তরের পরিচালক জানান, মোট শিক্ষার্থীর ৯৪৫৪ জন আবেদন করেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদ, ইনস্টিটিউট, এম. ফিল. ও পিএইচডি শিক্ষার্থীর সংখ্যা সর্বমোট ১৪৫৬৫ জন। এর মধ্যে আবেদন করেছে প্রায় ৬৫ শতাংশ শিক্ষার্থী। রেজিস্ট্রেশনের শেষ সময় অর্থাৎ গতকাল রাত পর্যন্ত এ আবেদনর সংখ্যা চূড়ান্ত করা হয়েছে।

আবেদনের সময় বাড়ানোর বিষয়ে তিনি বলেন, এখনকারর জন্য সময় শেষ। তবে আমাদের কিছু শিক্ষার্থী বাকি আছে। রবিবার দেখা যাক কি সিদ্ধান্ত হয়। আর যারা এনআইডির জন্য আবেদন করতে পারেনি তাদের বিষয়ে মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নিবে।

টিকার জন্য আবেদন না করার সবচেয়ে বড় কারণ হিসেবে অনেকে বলছেন আইডি কার্ড না থাকা। এনআইডি ছাড়া রেজিস্ট্রেশন করা যায়নি টিকার।

অনেক শিক্ষার্থীর এনআইডি নেই। আবার অনেকে এনআইডি করতে দিলেও এখনো হাতে পাননি। এ নিয়মের জন্যই রেজিস্ট্রেশন থেকে বাদ পড়েছেন অনেক শিক্ষার্থী।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মোঃ ওহিদুজ্জামান বলেন, শিক্ষার্থীদের কবে টিকা দেওয়া হবে সেটা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানে। যাদের এন আইডি নেই তাদের ব্যাপারে মন্ত্রণালয়ের সাথে কথা বলে জানাব।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থী এবং এমফিল ও পিএইচডি গবেষকদের করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা টিকার আওতায় আনতে গত ৩ জুন প্রজ্ঞাপন জারি করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। রেজিস্ট্রেশনের মেয়াদ শেষ হয় ১০ জুন।

আইআর /