|

চুয়েটে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা নববর্ষ-১৪২৯ উদযাপন

Published: Thu, 14 Apr 2022 | Updated: Thu, 14 Apr 2022

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) বর্ণিল ও বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাঙালির প্রাণের উৎসব “বাংলা নববর্ষ-১৪২৯” উদযাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার (১৪ই এপ্রিল) ২০২২ খ্রি. পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। র‌্যালিতে নেতৃত্ব দেন চুয়েটের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। 

র‌্যালিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ শিশুকিশোররা অংশগ্রহণ করেন। র‌্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ভবনের সামনে থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের প্রধান ফটক ও গোল চত্বর প্রদক্ষিণ করে প্রশাসনিক ভবনে এসে শেষ হয়। এ সময় চুয়েট মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর উপস্থিত সকলের সাথে কুশল বিনিময় এবং বাংলা নববর্ষ-১৪২৯ এর শুভেচ্ছা জানান।

পরে প্রশাসনিক ভবনের নিচে র‌্যালিত্তোর এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। 

এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন পুরকৌশল অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. মইনুল ইসলাম, তড়িৎ ও কম্পিউটার কৌশল অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মশিউল হক, স্থাপত্য ও পরিকল্পনা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কামরুল হাছান, রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী, ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. রেজাউল করিম, শিক্ষক সমিতির সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. এম.এক. জিয়াউল হায়দার, অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জনাব মোহাম্মদ হারুন, স্টাফ এসোসিয়েশনের সভাপতি জনাব মো. জামাল উদ্দীন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন উপ-পরিচালক (জনসংযোগ) জনাব মোহাম্মদ ফজলুর রহমান।

অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম বলেন, “পহেলা বৈশাখ বাঙালির প্রাণের উৎসব। বৈশাখের অবিচ্ছেদ্য একটি অনুষঙ্গ মঙ্গল শোভাযাত্রা। ইউনেস্কো এটিকে বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। মঙ্গল শোভাযাত্রা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি। তাই আমাদের বাঙালি জাতীয়বাদের চেতনা ও অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে ধারণ করতে হবে। পহেলা বৈশাখ সকল অশুভ শক্তিকে পেছনে ফেলে সামনের দিনগুলোতে সবার জন্য শান্তি বয়ে আনুক সেই প্রত্যাশা করি।”

আইআর /