|

চবির ১২ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার

Published: Mon, 18 Oct 2021 | Updated: Mon, 18 Oct 2021

অভিযাত্রা ডেস্ক: বারবার সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ার সমালোচনার পর বিভিন্ন মেয়াদে ১২ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করেছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। গতকাল রোববার (১৭ অক্টোবর) রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব রেসিডেন্স হেলথ অ্যান্ড ডিসিপ্লিনারি কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। 
 

উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় তাঁদের বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষা কার্যক্রম থেকে বিরত থাকতে বলা হয়। এমনকি তাঁদের হল ও ক্যাম্পাসে অবস্থানের ওপরও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীরা শাখা ছাত্রলীগের চুজ ফ্রেন্ডস উইথ কেয়ার (সিএফসি) ও সিক্সটি নাইন পক্ষের নেতা-কর্মী। সিএফসির নেতা-কর্মীরা শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী। এই পক্ষের নেতা চবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেল। অপরদিকে সিক্সটি নাইন পক্ষের নেতা-কর্মীরা সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাসিরের অনুসারী। তাঁদের অধিকাংশই শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপুর হয়ে কাজ করেন।

এঁদের মধ্যে ছয় মাসের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে অর্থনীতি বিভাগের ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষের ফরহাদ, ইতিহাস বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের জুনায়েদ হোসেন জয়, আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের নাইম, একই শিক্ষাবর্ষের বাংলা বিভাগের সাইফুল ইসলাম, আইন বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের খালেদ মাসুদ, লোক প্রশাসন বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের অহিদুজ্জামান সরকার, সমাজতত্ত্ব বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের আরিফুল ইসলাম, আরবি বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের তৌহিদ ইসলাম, কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের তানজিল হোসেনকে। এ ছাড়া রসায়ন বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের আশরাফুল আলম নায়েম ও আইন বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের মির্জা কবির সাদাফকে ১ বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে মিথ্যা অভিযোগ ও সম্প্রতি ক্যাম্পাসে সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে ১২ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করা হয়েছে।

ও/এসএ/