|

টানা বৃষ্টিতে মণিরামপুরে ফসলের ক্ষতির আংশঙ্কা

Published: Tue, 19 Oct 2021 | Updated: Tue, 19 Oct 2021

উত্তম চক্রবর্তী, মনিরামপুর, যশোর : টানা চারদিনের বৃষ্টিতে যশোরের মণিরামপুরে ফসলের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতির আশঙ্কা করছে কৃষকেরা। গত শনিবার থেকে শুরু হয়েছে বৃষ্টিপাত। থেমে থেমে প্রবল বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় মণিরামপুরের রাজগঞ্জ অঞ্চলের চাষ হওয়া সবজি ও আমন ফসলের ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। 

মঙ্গলবার (১৯ অক্টৌবর) সকালে এ অঞ্চলের কয়েকজন কৃষকের সাথে কথা হয়। তারা জানান, আমনের ধান বের হয়েছে, এই মুহূর্তে ব্যাপক বৃষ্টি ও ঝড়ো বাতাসে কিছু কিছু ক্ষেতের আমন ধানের গাছ ভেঙে মাটিতে পড়ে গেছে। এ নিয়ে কৃষকরা বেশ শঙ্কিত হয়ে পড়েছে। শীতকালীন সবজির বীজের জন্য তৈরিকৃত বীজতলা ব্যাপক ক্ষতির মুখে রয়েছে। ইতিমধ্যে রাজগঞ্জের রামপুর-শাহপুরের বিশাল মাঠে কৃষকেরা বপণ করেছেন বাঁধাকপি, ফুলকপি, ওলকপি, লালশাক, পালনশাক, মূলা, লাউ, শিমসহ বিভিন্ন রকমের সবজি। এসব জমির মাটি ভিজে কিংবা পানি জমে থাকায় ফসলের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতির আশঙ্কা করছে তারা। 

শাহপুর গ্রামের চাষি আবুল কালাম (৪৫) জানান, গত চারদিন ধরে অঝরে বৃষ্টির কারণে আমার প্রায় ৩ বিঘা জমিতে শীতকালিন সবজি চাষের জন্য তৈরি করা জমি একেবারে নষ্ট হয়ে গেছে। বাঁধাকপি, ফুলকপি, ওলকপি ও টমেটার বীজতলায় পচন রোগ দেখা দিয়েছে। এই বীজতলায় পচন রোগ ঠেকাতে এখন ছত্রাক কীটনাশক স্প্রে করা হচ্ছে। এছাড়া এই অঞ্চলে বেগুন, কাঁচা মরিচের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। 

কৃষক আনোয়ার হোসেন (৪০), আব্দুল মান্নান (৪২) ও মাহাবুর রহমান (৪৫) বলেন- শীতকালীন সকল সবজির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে প্রবল বৃষ্টিপাতে। যেসব জমিতে বিভিন্ন শীতকালিন সবজির চারা গঁজানো শুরু করেছে। সেগুলো নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। 

এ বিষয়ে স্থানীয় উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মো. হাসানুজ্জামান বলেন, টানা বৃষ্টিতে সবজির বীজতলা ও রোপণকৃত শাক সবজির ক্ষতি আশঙ্কা করা হচ্ছে। এছাড়াও আমন ধান যা পেকে গেছে, সেই ধান পড়ে গেছে। এইগুলোর কিছু ক্ষতি হবে। আমরা মাঠে মাঠে যেয়ে কৃষকদের সাথে এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করছি এবং পরামর্শ দিচ্ছি। 

 

ডব্লিউইউ