|

৯৬ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন জয়াসুরিয়া

Published: Sun, 17 Jul 2022 | Updated: Sun, 17 Jul 2022

প্রায়ই বলতে শোনা যায়, কেউ পিছিয়ে থাকেনা। সবাই সময়মতই সবকিছু পেয়ে যায়। কথাটির সর্বশেষ উদাহরণ সৃষ্টি করছেন লঙ্কান স্পিনার প্রবাথ জয়াসুরিয়া। বয়সের কাঁটা ৩০ পার হওয়ার পর অভিষেক হলেও নিজের সামর্থ্যের জানানটা পুরোপুরিই দিচ্ছেন বাঁহাতি এই স্পিনার।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে অভিষেক হয় জয়াসুরিয়ার। সেই ম্যাচের দুই ইনিংসেই ৬টি করে উইকেট তুলে নেন এ স্পিনার। সেই ম্যাচে ইতিহাসের মাত্র পঞ্চম বোলার হিসেবে অভিষেক টেস্টে ১২ উইকেট নেয়ার রেকর্ড গড়েন প্রবাথ।

তবে এটুকুতেই থেমে থাকেননি বাঁহাতি এই স্পিনার। পরের ম্যাচে গড়লেন আরও বড় কীর্তি। এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে তুলে নিয়েছেন আরও ৫টি উইকেট। 

৩৯ ওভারে মাত্র ৮৫ রান তুলতেই ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলা পাকিস্তান এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সংগ্রহ করেছে ১৫৪ রান, ৯ উইকেট হারিয়ে। এর মধ্যে রেকর্ডম্যান প্রবাথ জয়াসুরিয়া একাই নিয়েছেন ৫টি উইকেট।

যার সুবাদে ৯৬ বছরের পুরোনো এক রেকর্ড নিজের করে নিলেন লঙ্কান এ বাঁহাতি স্পিনার। টেস্ট ইতিহাসে প্রবাথসহ মাত্র তিনজন স্পিনারই অভিষেকের পর টানা তিন ইনিংসে পাঁচ বা ততোধিক উইকেট নিতে পেরেছেন। তার আগে এ কীর্তি গড়া অন্য দুজন হলেন- ইংল্যান্ড টম রিচার্ডসন (১৮৯৩) ও অস্ট্রেলিয়ার ক্ল্যারি গ্রিমেট (১৯২৬)।

সর্বপ্রথম এ কীর্তি গড়া রিচার্ডসন নিজের প্রথম তিন ইনিংসে নেন ঠিক পাঁচটি করে উইকেট। তার ৩৩ বছর পর গ্রিমেট প্রথম তিন ইনিংসে নেন মোট ১৬টি উইকেট। 

প্রায় ৯৬ বছর পর ওই দুজনকে ছাপিয়ে টানা তিন ইনিংসে এরই মধ্যে ১৭টি উইকেট শিকার করে ফেলেছেন জয়াসুরিয়া। এবার তার সামনে সুযোগ বিশ্বের প্রথম বোলার হিসেবে অভিষেকের পর টানা তিন ইনিংসে ৬টি করে উইকেট নেয়ার। কেননা, প্রথম দুই ইনিংসেই ৬টি করে উইকেট পেয়েছেন প্রবাথ।

এছাড়াও এই রেকর্ডম্যানের সামনে আরও সুযোগ থাকছে, বিশ্বের প্রথম বোলার হিসেবে অভিষেকের পর টানা চার ইনিংসে পাঁচ উইকেট নেয়ার। গল টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ফাইফার নিলেই এ কীর্তি হয়ে যাবে জয়াসুরিয়ার।

এদিকে, নতুন এই জয়াসুরিয়ার অনন্য রেকর্ডের দিনে খাদের কিনারে পড়া পাকিস্তান দলের হয়ে একাই লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন দলটির অধিনায়ক বাবর আজম। দলের পক্ষে মাত্র পাঁচজন দুই অঙ্ক ছুঁতে পারলেও ২০ ছুঁতে পারেননি তিনি ছাড়া কেউই।

এমন অবস্থায় টেস্ট ক্যারিয়ারের ২২তম ফিফটি আদায় করে অপরাজিত আছেন ৬১ রানে, লড়ছেন শেষ ব্যাটার নাসিম শাহকে নিয়ে। ২০ বল খেলে অধিনায়ককে সঙ্গ দিচ্ছেন এই তরুণ।

এর আগে শাহিন আফ্রিদি, ইয়াসির শাহ ও হাসান আলীর বোলিং তোপের মুখে ২২২ রানে গুটিয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৬ রান করেন দীনেশ চান্দিমাল।

আইআর /