|

বাল্যবিয়ের আসরে ভুয়া কাজিসহ আটক ৩

Published: Fri, 28 Aug 2020 | Updated: Fri, 28 Aug 2020

মোহাম্মদ আমিনুল হক বুুলবুল, নান্দাইল (ময়মনসিংহ) : ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় বাল্যবিয়ের আসর থেকে এক ভুয়া কাজিসহ তিনজনকে আটক করে বিভিন্ন মেয়াদে জেল দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. এরশাদ উদ্দিনের নেতৃত্বে গঠিত ভ্রাম্যমাণ আদালত। বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্ট) মধ্যরাতে নান্দাইল পৌরসভার দশালিয়া গ্রামে শফিকুল ইসলামের ভাগ্নী বিউটি আক্তারের বিয়ের আসর থেকে তাদের আটক করা হয়। 

বিউটি আক্তার কেন্দুয়া উপজেলার রোয়াইলবাড়ি ইউপি’র পুরানবাড়ি গ্রামের আবেদ আলীর কন্যা। মামা শফিকুল ইসলামের বাড়িতে সে বেড়াতে এসেছিল। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে গোপনে বিউটি আক্তারের বিয়ে দেয়ার চূড়ান্ত প্রস্তুতি চলছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পেরে বিয়ের আসরে অভিযান চালান উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. এরশাদ উদ্দীন।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বাল্যবিয়ের বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় বিয়ের নিবন্ধন করতে আসা উপজেলার লংপুর গ্রামের মৃত আ. ছোবানের পুত্র আবুল হাসেমকে নিবন্ধন বইসহ আটক করে পুলিশ। এছাড়াও আটক করা হয় কিশোরীর দুই মামা মৃত আ. গফুরের দুই পুত্র শফিকুল ইসলাম ও সাইফুল ইসলামকে।

পরবর্তীতে বিয়ের নিবন্ধন করতে আসা আবুল হাসেম ভুয়া কাজি প্রমাণিত হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক মাসের এবং কিশোরীর দুই মামাকে পনের দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

এ বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. এরশাদ উদ্দীন বলেন, ছেলে পক্ষকে বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত পাওয়া যায়নি। যতদূর জানতে পেরেছি উপজেলার অরণ্যপাশা গ্রামে বিয়ে দেয়া হচ্ছিল। বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে সর্বোচ্চ কঠোর অবস্থানে আছি। যেখানে বাল্যবিয়ে সেখানেই অভিযান।

ও/ডব্লিউইউ