|

প্রতিবেশীর লালসার শিকার ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা!

Published: Tue, 01 Mar 2022 | Updated: Tue, 01 Mar 2022

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি: পাবনার চাটমোহরের দাঁথিয়া কয়রাপাড়া গ্রামে প্রতিবেশী ধর্মমামার লালসার শিকার ৫ম শ্রেণীর এক ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। আর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনাটি জানাজানি হওয়ায় অভিযুক্তকে যেতে হলো শ্রীঘরে। ভুক্তভোগীর পরিবার থেকে মামলা করার গত সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) তাকে গ্রেফতার করে চাটমোহর থানা পুলিশ। ভুক্তভোগী এখন ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা বলে জানা গেছে।

অভিযুক্তের নাম সাইফুল মন্ডল (৫০)। দাথিয়া কয়রাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা তফিজ মন্ডলের ছেলে, সে পেশায় রাজমিস্ত্রী। ভুক্তভোগীর মায়ের সাথে অভিযুক্ত সাইফুলের ধর্মভাই সম্পর্ক ছিল। সেই হিসেবে ভুক্তভোগীদের বাড়িতে যাতায়াত ছিল সাইফুল মণ্ডলের।

জানা গেছে, লালসার আগে ভুক্তভোগীকে ঘুমের ওষুধ সেবন করিয়েছিল অভিযুক্ত, তারপর লালসা মেটায়। ঘটনাটি ভুক্তভোগীকে জানায় অভিযুক্ত এবং আবারও লালসা মেটায়। ঘটনাটি ঘটে ভুক্তভোগীর বাড়িতে, এ সময় তারা দু’জন ছাড়া বাড়িতে অন্য কেউ ছিল না। বিষয়টি যেন কাউকে না বলা হয়, সেজন্য ভুক্তভোগীকে নানা ধরণের ভয় দেখায় অভিযুক্ত। এক পর্যায়ে ভুক্তভোগী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে, পুরো গ্রামের মানুষ জেনে যায়। বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসার চেষ্টা করা হয়।

চাটমোহর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আনোয়ার বলেন, ভুক্তভোগীর পরিবার থেকে অভিযোগ পাওয়ার পরে সাইফুল মন্ডলকে আটক করা হয়। মেয়েটির বাবা তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেছে। আসামিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।


ডব্লিউইউ