|

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সুযোগ না পাওয়া নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর আক্ষেপ

Published: Wed, 23 Nov 2022 | Updated: Wed, 23 Nov 2022

অভিযাত্রা ডেস্ক: বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সুযোগ না পাওয়া নিয়ে আক্ষেপ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘বিশ্বকাপ হচ্ছে, আমাদের টিম নেই, এটা কষ্ট দেয়। রোজ খেলা দেখি আর ভাবি, কবে আমাদের ছেলে-মেয়েরা সুযোগ পাবে।’

বুধবার (২৩ নভেম্বর) রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্পোর্টস চ্যাম্পিয়নশিপ-২০২২  তৃতীয় আসরের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন শেখ হাসিনা।

খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক চর্চায় প্রয়োজনীয় পৃষ্ঠপোষকতা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতিযোগিতা করে বাংলাদেশ বিশ্বে খেলাধুলায় আরও অবস্থান তৈরি করবে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের ছেলে-মেয়েরা অত্যন্ত মেধাবী, গুণী। তারা একটু সুযোগ পেলে অসাধ্য সাধন করতে পারে। আমাদের মেয়েরা অনেক ভালো করছে। এতে কোনো সন্দেহ নাই। মেয়েরা সাফ গেমসে, এশিয়ান গেমসে ফুটবল-ক্রিকেটে পারদর্শিতা দেখাচ্ছে। আমি মনে করি আমাদের ছেলেরাও পারবে।’

খেলাধুলা ও প্রতিযোগিতা যুবসমাজকে পথ দেখায় উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যত বেশি খেলাধুলা করবে মন ও শরীর ভালো থাকবে। খেলাধুলায় যে প্রতিযোগিতা, তা দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করবে।

সরকারপ্রধান বলেন, ‘আমরা ক্রীড়া প্রশিক্ষণের জন্য শুধু ঢাকা না, ৮ বিভাগে একটি করে বিএকেএসপি করে দিচ্ছি। যে যে ইভেন্টে আমাদের ছেলেরা খেলার যোগ্য, সেই ইভেন্টগুলোতে যেন চর্চা হয়। বিশেষ করে প্রশিক্ষণ একান্তভাবে দরকার। কারণ স্বাধীনতার পরপরই জাতির পিতা আমাদের দেশের খেলোয়াড়দের জামার্নি, ভারতসহ অন্যান্য দেশে পাঠিয়েছিলেন। ট্রেনিং করিয়ে এনিয়েছিলেন। আমরাও সেভাবে চাই, আমাদের ছেলে-মেয়েদের স্পোটর্সের বিভিন্ন শাখায় ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করে দেওয়া এবং খেলাধুলার জন্য আরও সুযোগ সৃষ্টি করে দেওয়া।’

মাদক ও জঙ্গিবাদে রুখতে খেলার সুন্দর পরিবেশ করে দেওয়া হয়েছে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি জানি, এ জন্য সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা লাগে। সেভাবেই আমরা কাজ করছি। সারা দেশে মিনি স্টেডিয়াম করে দিচ্ছি, খেলোয়াড়দের বিকশিত হওয়ার জন্য প্রশিক্ষণ দিচ্ছি। সামনে আরও সুযোগ করে দেব।’

অনুষ্ঠানে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন, সচিব মেজবাহ উদ্দিন, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যসহ খেলোয়াড় ও আয়োজকরা উপস্থিত ছিলেন।

ও/এসএ/