|

বিআরটিসির ডিপো : অচল গাড়ির ভিড়ে ঠাঁই মিলেনা সচল গাড়ির

Published: Tue, 23 Feb 2021 | Updated: Tue, 23 Feb 2021

অভিযাত্রা ডেস্ক : রাষ্ট্রায়ত্ত পরিবহন সংস্থা বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনের (বিআরটিসি) ডিপোগুলো অচল গাড়িতে পূর্ণ। ফলে বাধ্য হয়ে সংস্থার সচল গাড়িগুলোকে রাস্তায় রাখতে হচ্ছে। কেবল বাসই নয়, রাস্তায় পার্ক করে রাখা হচ্ছে সংস্থাটির ট্রাকও।

রাজধানীতে বিআরটিসির ৬টি ডিপো রয়েছে। সবগুলো ডিপোরই একই অবস্থা। যানজট নিরসনে রাতে সড়কের ওপর গাড়ি পার্ক করে না রাখতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। বিআরটিসিকেও একই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। চলতি বছরের প্রথম দিন থেকেই তা কার্যকর হওয়ার কথা। তবে ডিপোতে জায়গার অভাবের কারণ দেখিয়ে সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য বিআরটিসি আরো ছয় মাস সময় চেয়েছে। বিআরটিসি সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, ঢাকায় থাকা বিআরটিসির ৬টি বাস ডিপোর বেশির ভাগই অতি পুরনো আর অকেজো বাস দিয়ে ভরা। ভেতরে জায়গার সংকুলান না হওয়ায় সচল বাসগুলো পার্ক করে রাস্তায় রাখা হচ্ছে। তাছাড়া সারা দেশে সংস্থাটির ২১টি বাস ও দুটি ট্রাক ডিপো রয়েছে। বর্তমানে সংস্থাটির বহরে ১ হাজার ৮১৫টি বাস ও ৫৯১টি ট্রাকের মধ্যে ঢাকা ও ঢাকার আশপাশের ডিপোগুলোতে ১ হাজার ৮২টি বাস ও ২৫৭টি ট্রাক রাখা হচ্ছে।

তবে মতিঝিল ডিপোর ভেতরে জায়গা সংকুলান না হওয়ায় ৩৪টি বাস ও জোয়ারসাহারা ডিপোর ১৯টি বাস রাস্তায় বা ফাঁকা জায়গায় পার্ক করে রাখা হচ্ছে বলে সংস্থাটি সিটি করপোরেশনকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে। একইভাবে তেজগাঁও এলাকায় ১০টি ট্রাকও রাস্তার ওপর পার্ক করে রাখার কথা জানিয়েছে বিআরটিসি।

আর গত ১ জানুয়ারি থেকে ঢাকার রাস্তায় রাত ১২টার পর কোনো বাস পার্কিং না করতে বিআরটিসিকে ডিএসসিসির পক্ষ থেকে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।

ওই নির্দেশনার পরিপ্রেক্ষিতে বিআরটিসি জানিয়েছে, ঢাকা মহানগরীতে বিআরটিসির নিজস্ব আলাদা জায়গা বা টার্মিনাল নেই। ঢাকার বিভিন্ন ডিপোতে অতি পুরনো আর অকেজো বাসগুলো পর্যায়ক্রমে নিলামে বিক্রি করে ডিপোর জায়গা খালি করা হবে। জায়গা খালি হলে যেসব বাস-ট্রাক বর্তমানে রাস্তায় রাখা হচ্ছে, সেগুলো ডিপোর ভেতরে রাখা হবে। এমন কারণ দেখিয়ে ঢাকায় রাস্তার ওপর আরো ৬ মাস বাস-ট্রাক রাখার অনুমতি চেয়েছে বিআরটিসি।

সূত্র জানায়, ঢাকার বাইরে বিআরটিসির আরো ১৩টি বাস ডিপো রয়েছে। ওগুলো রয়েছে গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, সিলেট, বগুড়া, পাবনা, সোনাপুর, রংপুর, বরিশাল ও দিনাজপুর। তার বাইরে ঢাকা ও চট্টগ্রামে রয়েছে দুটি ট্রাক ডিপো। ঢাকার বাইরে থাকা ওসব ডিপোতেও স্থান সংকট রয়েছে। রাজশাহীর আলুপট্টি ও রংপুরের মেডিকেল মোড়ের ডিপোতে জায়গাস্বল্পতা রয়েছে। রংপুরে ডিপোর ভেতরে জায়গার সংকুলান না হওয়ায় রাস্তার ওপরই রাখা হচ্ছে অনেক বাস। আর অচল বাসগুলোর অবস্থা আরো খারাপ। রোদ-বৃষ্টিতে সেগুলো বিক্রিরও অনুপযোগী হয়ে উঠছে।

তাছাড়া বিআরটিসি শুধু রাস্তার ওপর অবৈধভাবে বাস-ট্রাক পার্ক করেই আইন অমান্য করছে না, সংস্থাটির গাড়িগুলো সড়ক পরিবহন আইনের অন্য বিষয়গুলোও লঙ্ঘন করছে। সম্প্রতি বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) ভ্রাম্যমাণ আদালত বিআরটিসির ১৫৭টি বাস পরিদর্শন করে। পরিদর্শনকালে ভাড়ার তালিকা, ড্রাইভারের ছবি ও মোবাইল নম্বর, ডিজিটাল নম্বর প্লেট না থাকা, নোংরা পরিবেশ ও অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহনের দায়ে ৪০টি বাসকে জরিমানা করা হয়েছে।

ও/এসএ/