|

পাঁচ মাস পর দাম কমল এলপিজির

Published: Thu, 02 Dec 2021 | Updated: Thu, 02 Dec 2021

টানা পাঁচ মাস ধরে বাড়তে থাকা রান্নার কাজে ব্যবহৃত তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাস বা এলপিজির দাম কমিয়েছে জ্বালানি নিয়ন্ত্রক সংস্থা। বৃহস্পতিবার (০২ ডিসেম্বর) ৭ টাকা ১০ পয়সা বা ৬ দশমিক ৪৯ শতাংশ কমিয়ে মূসকসহ কেজিপ্রতি এলপিজির দাম দাম ১০২ টাকা ৩২ পয়সায় পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে। 

এর ফলে ১২ কেজি ওজনের এলপিজি সিলিন্ডারের দাম কমল ৮৫ টাকা, যা ৩ ডিসেম্বর শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে কার্যকর হবে। 

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) যে আদেশ দিয়েছে, তাতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত ১২ কেজি ওজনের সিলিন্ডারের মূসকসহ ভোক্তা পর্যায়ের দাম হলো ১২২৮ টাকা। এই দাম যথাক্রমে নভেম্বরে ১৩১৩ টাকা, অক্টোবরে ১২৫৯ টাকা ও সেপ্টেম্বরে ১০৩৩ টাকা ছিল।

তার আগে আগস্ট মাসে ৯৮৬ টাকা, জুলাই মাসে ৮৯১ টাকা এবং জুন মাসে ৮৪২ টাকা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছিল ১২ কেজি সিলিন্ডারের দাম। বিইআরসি বলছে, নতুন হারে ডিসেম্বর মাসে সাড়ে ৫ কেজি, সাড়ে ১২ কেজি, ১৫ কেজি, ১৬ কেজি, ১৮ কেজি, ২০ কেজি, ২২ কেজি, ২৫ কেজি, ৩০ কেজি, ৩৩ কেজি, ৩৫ কেজি ও ৪৫ কেজি এলপিজি সিলিন্ডারে দাম নির্ধারিত হবে।

ডিসেম্বরের জন্য রেটিকুলেটেড পদ্ধতিতে তরল অবস্থায় সরবরাহ করা বেসরকারি এলপিজির দাম ধরা হয়েছে মূসকসহ প্রতিকেজি ৯৯ টাকা ০৮ পয়সা।

যানবাহনের জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত অটোগ্যাস বা এলপিজির দাম ধরা হয়েছে মূসকসহ প্রতিলিটার ৫৭ টাকা ২৪ পয়সা। তবে সরকারি এলপিজির দামে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি। 

ঘোষণায় বলা হয়, ডিসেম্বর মাসে সৌদি আরামকো কর্তৃক ঘোষিত প্রোপেন ও বিউটেনের দাম যথাক্রমে ৭৯৫ ডলার ও ৭৫০ ডলার করা হয়েছে। সেই হিসেবে প্রোপেন ও বিউটেনের মিশ্রণের দাম ধরা হয়েছে ৭৬৫ দশমিক ৭৫ ডলার।

-এমজে