|

টিকায় ব্যয় ৪০০০০ কোটি টাকা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

Published: Thu, 10 Mar 2022 | Updated: Thu, 10 Mar 2022

করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা কেনা ও টিকাদান কার্যক্রমে সরকারের ৪০ হাজার কোটি টাকা খরচ হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) ‘আন্তর্জাতিক কিডনি দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত জাতীয় কিডনি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশ এখন বিশ্বের রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি পাচ্ছে। সে সঙ্গে দেশে একদিনে এক কোটি ২০ লাখ টিকা দেওয়া হয়েছে। সবমিলিয়ে অল্প সময়ে দেশে ২২ কোটি ডোজ টিকা দিয়ে করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশ এখন অষ্টম স্থানে রয়েছে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘করোনায় বিশ্বের অনেক দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা যখন ভয়াবহ, তখন বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি আবারও ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। জিডিপি ৬ প্লাস হয়েছে। মানুষ এখন নিশ্চিন্তে আবার ব্যবসা-বাণিজ্যে মন দিতে পারছে, এগুলো এমনি এমনি হয়নি।’ এজন্য স্বাস্থ্য খাতকে দিন-রাত কাজ করতে হয়েছে।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘একদিনে আমরা এক কোটি ২০ লাখ ডোজ টিকা দিতে পেরেছি, যা একটি রেকর্ড। আমরা এ পর্যন্ত প্রায় ২২ কোটি ডোজ টিকা দিতে সক্ষম হয়েছি। এর মধ্যে টিকার প্রথম ডোজ সাড়ে ১২ কোটি, দ্বিতীয় ডোজ সাড়ে আট কোটি, আর বুস্টার ডোজ হিসেবে দেওয়া হয়েছে ৫০ লাখ।’

সব টিকা ক্রয় ও টিকাদান কার্যক্রম মিলে এগুলোর পেছনে সব মিলিয়ে সরকারের প্রায় ৪০ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হয়েছে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

-এমজে