|

পুলিশ হেফাজতে যুবকের মৃত্যু, সড়ক অবরোধ-ভাংচুর

Published: Fri, 15 Apr 2022 | Updated: Fri, 15 Apr 2022

লালমনিরহাট প্রতিনিধি : লালমনিরহাটে পুলিশ হেফাজতে রবিউল ইসলাম খাঁন নামের এক যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জেলার মহেন্দ্রনগরে লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়ক অবরোধ করে নিহতের স্বজন ও স্থানীয়রা। এ সময় পুলিশের একটি গাড়ী ভাংচুর করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) রাত ২টার দিকে লালমনিরহাট সদর উপজেলার হারাটি ইউনিয়নের হিরামানিক এলাকার চর্কেরথান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রবিউল ইসলাম খাঁন সদর উপজেলার হারাটী ইউনিয়নের কাজীরচওড়া এলাকার দুলাল খানের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান জুয়া খেলার অভিযোগে বৈশাখী মেলা থেকে রবিউল ইসলাম খাঁন (২৫) ও শ্রী পোল্লাদ মেকার (৪০) নামে দুই জনকে আটক করে পুলিশ। পোল্লাদ রায় দক্ষিণ হিরা মানিক এলাকার মৃত রসনি চন্দ্রের ছেলে। 

বৃহস্পতিবার সদর উপজেলার হারাটি ইউনিয়নের হিরামানিক এলাকায় বৈশাখী মেলা চলছিল। মেলায় কিছু জুয়ারি ডাবু (ছয়গুটি) জুয়া খেলা বসালে ৯৯৯ এ খবর পায় পুলিশ। পরে পুলিশ গিয়ে জুয়ারিদের ধাওয়া করলে তারা পালিয়ে যায়। তবে ঘটনাস্থল থেকে মেলায় ঘুরতে যাওয়া শ্রী পোল্লাদ মেকার ও রবিউল ইসলাম নামে দুই জনকে আটক করে পুলিশ। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানান পুলিশ আটক দুজনকে ভ্যানে উঠানোর চেষ্টা করলে রবিউল ভ্যানে উঠতে রাজি হয়নি। পরে পুলিশ তাকে বেদম মারপিট করে। এতে রবিউল সেখানেই মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে পুলিশ তাকে ভ্যানে তুলে থানায় নিয়ে আসে। পুলিশের নির্যাতনের কারনেই রবিউল অসুস্থ হয় এবং ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে তারা জানান।

পুলিশের নির্যাতনে ঘটনাস্থলেই রবিউলের মৃত্যু হয়েছে বলে স্বজনরা অভিযোগ করছেন। পুলিশ তাদের নিজেদের দোষ এরাতে রবিউলের মৃত্যুর পর তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে বলে প্রচার চালায়।

এদিকে রবিউলের মৃত্যুর খবরে রাত ২টার পর থেকে উপজেলার মহেন্দ্রনগরে লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়ক অবরোধ করে স্থানীয়রা। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে নির্যাতনকারী পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান তারা। এ সময় তারা পুলিশের একটি গাড়ি ভাংচুর করে। পরে ভোর ৪টার দিকে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহা আলম তদন্ত অনুযায়ী দোষিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানালে স্থানীয়রা অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়।

এ ব্যাপারে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে রাজি হননি।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম জানান মেলায় জুয়া চলছে এমন খবরে পুলিশ অভিযান চালায় এবং দুজনকে গ্রেফতার করে।থানায় নেওয়ার সময় একজন অসুস্থতা বোধ করলে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হয়। উন্নত চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতিকালে তিনি মারা যান।

-এমজে