|

বার্সেলোনা ছাড়ছেন লিওনেল মেসি

Published: Fri, 06 Aug 2021 | Updated: Fri, 06 Aug 2021

বার্সেলোনার হয়ে আর খেলতে দেখা যাবে না লিওনেল মেসিকে। কয়েক মাস আগেও যেখানে বার্সাতেই মেসি থেকে যাচ্ছেন বলে উৎসব শুরু হয়ে গিয়েছিল, সেখানে হঠাৎ কী এমন ঘটল? অর্ধেক বেতনে খেলতে রাজি হলেও কেন মেসির পক্ষে আর বার্সার জার্সি গায়ে তোলা সম্ভব হলো না? এর জবাব খুঁজতে গেলে বোঝা যাবে, সমস্যা অনেক গভীরে।

বার্সেলোনা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, স্প্যানিশ লিগের নিয়ম অনুযায়ী তাদের পক্ষে মেসিকে সই করানো সম্ভব হয়নি। স্প্যানিশ লিগ কর্তৃপক্ষ নতুন নিয়ম চালু করেছেন, প্রতিটি ক্লাবকে আয়ের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে তাদের ফুটবলারদের বেতন দিতে হবে। কাউকে আকাশ ছোঁয়া পারিশ্রমিক দেওয়া যাবে না। মেসি অর্ধেক বেতনে খেলতে রাজি হলেও এই নিয়মের কারণে বার্সার পক্ষে তাঁকে সই করানো সম্ভব হয়নি। বিশেষ করে আর্থিক দিক দিয়ে বার্সেলোনা এখন ধুঁকছে। কোটি কোটি ডলারের দেনায় ডুবে রয়েছে ক্লাবটি। ফলে ওই নিয়মের বেড়াজালে আটকে গিয়ে মেসিকে অর্ধেক বেতনেও তারা সই করাতে পারেনি।

কিন্তু এটাই বিশ্বাসযোগ্য মনে হচ্ছে না অনেকের কাছে। যদি মেসিকে সই করাতে বার্সা এতটাই বদ্ধপরিকর হতো, তাহলে এই আর্থিক দেনার মধ্যেও ৯৬ লাখ ডলার খরচ করে রিয়েল বেটিসের এমার্সনকে নিতো না। এছাড়াও মোটা পারিশ্রমিকে তারা নিয়েছে মেমফিস ডিপেই এবং সার্জিও আগুয়েরোকে। 

তাই স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন ওঠে, মেসিকে রাখার এতো ইচ্ছা থাকলে পাঁচ কোটি ডলার এই তিনজনের পিছনে ঢালা হলো কেন? এই কারণেই মনে করা হচ্ছে, বার্সা-মেসি বিচ্ছেদের পিছনে অন্য অনেক কারণ আছে।

গত কয়েক মাস ধরে মেসি এবং তাঁর পরিবারের সঙ্গে কথাবার্তা চালানোর পরে হঠাৎ স্প্যানিশ লিগের নিয়মের কথা কেন উঠছে, সেটা নিয়ে অনেকের মনে প্রশ্ন। এই নিয়ম তো হঠাৎ আনা হয়নি। নতুন চুক্তি নিয়ে মেসির সঙ্গে বার্সার যখন কথাবার্তা শুরু হয়েছিল, তার আগে থেকেই এই নিয়ম ছিল।

মূলত মেসি নিজেই অনেক দিন থেকেই নানাভাবে বার্সায় আর না খেলার ইচ্ছে প্রকাশ করে আসছিলেন। গত মৌসুমে তাঁর সঙ্গে ক্লাবের সম্পর্ক একেবারে তলানিতে এসে ঠেকেছিল। তাঁর বার্সা ছাড়া একরকম পাকাই হয়ে গিয়েছিল। জাভি, ইনিয়েস্তারা পাশ থেকে সরে যাওয়ার পর পছন্দের দল পাচ্ছিলেন না মেসি। ২০১৪-১৫ সালে শেষ বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছিল বার্সা। 

মেসি বারবার বলেছেন, আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ্বকাপ জেতার স্বপ্ন বাদ দিলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগই তাঁর কাছে সবথেকে বড় স্বপ্ন। ফলে সেই যন্ত্রণাও কুরে কুরে খাচ্ছে মেসিকে।

তাই স্প্যানিশ লিগের নিয়মকে শিখণ্ডী খাড়া করে মেসি-বার্সা সম্পর্কে ছেদ পড়ল। ন্যাপকিনের কাগজে সই করা দিয়ে যে যুগের সূচনা হয়েছিল, সেটাই শেষ হলো বৃহস্পতিবার।

-এমজে