|

মেডিকেলে চান্স পেয়েও ভর্তি অনিশ্চিত মার্জিয়ার

Published: Sat, 09 Apr 2022 | Updated: Sat, 09 Apr 2022

মোহাম্মদ আমিনুল হক বুুলবুল, নান্দাইল (ময়মনসিংহ) : ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় চান্স পেয়েও অর্থাভাবে ভর্তি নিয়ে অনিশ্চিয়তায় রয়েছেন মার্জিয়া আক্তার।এজন্য তিনি সকলের আশীর্বাদ কামনা করেছেন। অভাব- অনটনের সংসারে মেডিকেল চান্স পাওয়া মেয়ের খরচ জোগাতে চিন্তিত তার বিধবা মা রোমেলা খাতুন।এ নিয়ে চরম দুশ্চিতায় পড়েছেন তিনি। 

মার্জিয়া আক্তার ভর্তি পরীক্ষায় মেধা তালিকায় ৭৫.২৫ স্কোর নিয়ে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন।তিনি স্থানীয় নান্দাইল পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ ও ময়মনসিংহের বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ (কেবি) থেকে বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ ৫ পান।

মার্জিয়া আক্তার ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার আচারগাঁও ইউনিয়নের ঝাউগড়া গ্রামের মৃত আব্দুল মালেকের মেয়ে।তিনি ছিলেন একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী।হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। মা রোমেলা খাতুন একজন গৃহিণী।তিনি দীর্ঘদিন ধরে বক্ষব্যধিতে  আক্রান্ত। পাঁচ সন্তানের মধ্যে মার্জিয়া তৃতীয়।

মার্জিয়ার মা রোমেলা খাতুন জানান, আর্থিক অভাব-অনটনের সংসারে অনেক কষ্ট করে মেয়েকে এত দূর এনেছেন। কিন্তু মেডিকেলে ভর্তিসহ পড়াশোনার ব্যয়ভার বহনের মতো অবস্থা তার নেই। মেয়ের ভর্তি টাকা জোগাড় করা নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন তিনি। সেজন্য সমাজের হৃদয়বান ও বিত্তশালীদের সহযোগিতা চান তিনি। 

মার্জিয়া বলেন,মায়ের সহযোগিতায় বাবার স্বপ্ন পুরণ করতে ডাক্তারি পড়ার সুযোগ তৈরি হলেও অর্থাভাব প্রধান বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিত্তবানদের সহায়তা ছাড়া মেডিকেলে ভর্তি ও ডাক্তারি পড়া সম্ভব নয় বলে জানান তিনি। সবকিছু মিলিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্য দিয়ে এখন দিন কাটছে মার্জিয়া আক্তারের।

আইআর /