শিশু অধিকার

আমাদের লাল সবুজ উত্তরাধিকার

 

দেশে আমাদের অনেক অর্জন রয়েছে। এর মধ্যে শিশু শিক্ষায়, মেয়ে শিশুদের শিক্ষায় অন্তর্ভূক্তি বৃদ্ধি পেয়েছে, নবজাত শিশু ও মাতৃ মৃত্যুর হার হ্রাস, টিকাদান কর্মসূচী, অনলাইন জন্ম নিবন্ধন- জাতীয়ভাবে শুরু করা হয়েছে ও ৮৫.৪৭% জন্ম নিবন্ধন করা হয়েছে ইত্যাদি। বাংলাদেশে শিশুদের সুরক্ষার ও সহায়তা করার লক্ষ্যে ১৯৭৪ সালে তৎকালীন সরকার শিশু আইন প্রণয়ন করেন। 

শিশুদেরকে যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

আজকের শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে শিশুদেরকে যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।

বুধবার (০৯ অক্টোবর) বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ- ২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

শিশুরা বেড়ে উঠুক নির্বিঘ্নে

শিশুর কোমল পবিত্র মুখের প্রাণবন্ত হাসিতে অয়োময়ের কঠিন হৃদয়ও বিগলিত হয়ে যায় মুহূর্তে। আজকের এই শিশুই আগামীদিনে দেশ ও জাতির ভবিষ্যত কর্ণধার। একটি নবজাতক শিশুর মধ্যে আজ যে প্রাণের সঞ্চার হল তা একদিন জাতির আশা-আকাঙ্ক্ষা ও ভবিষ্যত স্বপ্নকে সফল করবে। 

শিশু অধিকার

পিতামাতা তাঁদের সন্তানদের যেমন ভালবাসেন তেমনি তাঁদের শাসনও করেন এবং প্রতিটি পিতামাতার জন্য সন্তান প্রতিপালনের কর্মপরিধির এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ ও অপরিহার্য অংশ। আমার বিশ্বাস এই ভালবাসা ও শাসনের সুষম সামঞ্জস্য বিধানের মধ্য দিয়ে সন্তানদের প্রতিপালন প্রত্যেক স্বার্থক পিতামাতার অন্যতম বৈশিষ্ট্য হওয়া উচিত। তবে একাজটি খুব সহজ নয়, এটি যথেষ্ট কঠিন। কারণ অধিকাংশ ক্ষেত্রে আমাদের বাৎসল্য প্রেম নিরপেক্ষ হয়