পানিতে ডুবে শিশুদের মৃত্যু বিষয়ে গাইবান্ধায় কর্মশালা

Published: Mon, 16 Nov 2020 | Updated: Mon, 16 Nov 2020

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : রেডিও সারাবেলা ৯৮.৮ এফএম এর আয়োজনে এবং জেলা প্রশাসন ও ইউনিসেফ এর সহায়তায় গাইবান্ধায় পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধান ও প্রতিরোধে করণীয় শীর্ষক একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কর্মশালায় জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, স্বাস্থ্যকর্মী, শিক্ষক, এনজিও প্রতিনিধি, শিশু শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন পেশার ২৫ জন অংশগ্রহণকারী উপস্থিত ছিলেন। 

সোমবার (১৬ নভেম্বর) সদর উপজেলার বোয়ালী ইউনিয়ন পরিষদ কার্যলয়ে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাইবান্ধার স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মোছা. রোখছানা বেগম।

কর্মশালায় তৃণমুল পর্যায়ে বন্যাকালীন সময়ে শিশুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে পরিবারের সদস্যদের সচেতনতা বৃদ্ধি এবং কেউ পানিতে ডুবে গেলে উদ্ধার পরবর্তী প্রাথমিক চিকিৎসা বিষয়ে বিগত দিনের অভিজ্ঞতা বিনিময় করা হয়। 

কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মোছা. রোখছানা বেগম বলেন, পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু কারোরই কাম্য নয়। গত বন্যায় গাইবান্ধায় পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যুর সংখ্যা অনাকাঙ্ক্ষিত। এই পরিস্থিতিতে মায়েদের অনেক বেশি সতর্ক থাকতে হবে। বাড়ির আশে পাশে পুকুর থাকলে বাড়ির মালিকদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা হিসেসে ঘেরা দিয়ে রাখতে পরামর্শ দেন।

তিনি আরও বলেন, দেখা যায় পানিতে ডুবে যাওয়ার পর উদ্ধার পরবর্তীতে শুধুমাত্র অভিজ্ঞতার অভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দিতে ব্যার্থ হয় এবং শিশুর মৃত্যু ঘটে।

কর্মশালয় উপস্থিত সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থার কর্মীদের এবিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির কথা বলেন তিনি।

বেয়ালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এ.এম মাজেদ উদ্দিন খাঁন আব্দুল্যাহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসনের এলজিসি প্রকল্পের জেলা সমন্বয়কারী আব্দুল হালিম, জিইউকে সমন্বয়কারী আফতাব হোসেন, সাংবাদিক ও সহকারী অধ্যাপক মো. শফিউল আলম এবং মো. মজিবুল হক ছানা, এসকেএস সমন্বয়কারী মো. আশরাফুল আলম, সাংবাদিক ভবতোষ রায় মনা, পানিতে ডোবা নিহত শিশুর মাতা মোছা. রঞ্জিতা বেগম, শিশু প্রতিনিধি আহম্মেদ ফররুখ প্রমুখ। কর্মশালা সঞ্চালনা করেন রেডিও সারাবেলা সিনিয়র স্টেশন ম্যানেজার মাহাফুজ ফারুক।

ও/এসএ/