ভারী বৃষ্টিপাত : তামিলনাড়ুতে দেয়াল ধসে ১৭ জনের মৃত্যু

Published: Mon, 02 Dec 2019 | Updated: Mon, 02 Dec 2019

অভিযাত্রা ডেস্ক : ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যে কয়েকদিন ধরে চলা টানা বৃষ্টিপাতের মধ্যে এক গ্রামে একটি দেয়াল ধসে পড়ে দুটি শিশুসহ ১৭ জন মারা গেছেন। সোমবার (২ ডিসেম্বর) স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে ৫টায় ভারি বৃষ্টিপাতের চলাকালে কোয়িমবাতোর জেলার নাদুর গ্রামে দেয়াল ধসে পড়ার ঘটনাটি ঘটে, জানিয়েছে এনডিটিভি।

একটি কম্পাউন্ডের ২০ ফুট উঁচু দেয়াল ধসে কয়েকটি বাড়ির ওপর পড়ে। বাড়িগুলোর বাসিন্দারা তখন ঘুমিয়ে ছিলেন।  এ ঘটনায় নিহতদের প্রত্যের পরিবারকে চার লাখ রুপি করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে তামিলনাড়ু রাজ্য সরকার। গত কয়েকদিন ধরেই ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় দুই রাজ্য তামিল নাড়ু ও পুদুচেরির কয়েকটি জেলায় ভারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। সোমবারও ভারি বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কয়েকটি জায়গায় ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণের পূর্বাভাসে রেড এলার্ট জারি করা হয়েছে। প্রবল বৃষ্টিপাতে পর বেশ কয়েকটি এলাকা পানিতে তলিয়ে গেছে। চেন্নাই, টুটিকোরিন, টিরুভাল্লুর ও কানচীপুরামে স্কুল ও কলেজ বন্ধ রাখা হয়েছে।

আবহাওয়া দপ্তরের ভাষ্য অনুযায়ী, কোমোরিনের কাছে ভারত মহাসাগরে ঘূর্ণিঝড় তৈরি হওয়ায় এর প্রভাবে তামিলনাড়ুর উপকূলজুড়ে ব্যাপক বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা আছে। গত কয়েকদিনে তামিল নাড়ুর বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টিজনিত কয়েকটি ঘটনায় অন্তত তিন জনের মৃত্যু হয়েছে।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় পর্যাপ্ত প্রস্তুতি থাকার কথা জানিয়ে শঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে রাজ্য সরকার। তারা চেন্নাইয়ে ১৭৬টি ত্রাণ কেন্দ্র খুলেছে। দরকার হলে লোকজনকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য নৌকা প্রস্তুত আছে বলে আশ্বস্ত করেছে চেন্নাই সিটি কর্পোরেশন। নিচু এলাকা থেকে পানি সরানোর জন্য ৬৩০টি পানির পাম্প ও গাছ সরানোর ছয়টি মেশিন প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।

এসএ/