বদলে গেছে জেনারেল মুশাররফের মৃত্যুদন্ডের রায়

Published: Tue, 14 Jan 2020 | Updated: Tue, 14 Jan 2020

অভিযাত্রা ডেস্ক: পাকিস্তানের সাবেক স্বৈরশাসক জেনারেল পারভেজ মুশাররফের বিরুদ্ধে দেয়া মৃত্যুদন্ডের রায় বদলে গেছে। দেশদ্রোহীতার অভিযোগে মুশাররফের বিরুদ্ধে দেয়া রায় শুধু বদলায় নি বরং যে আদালতে তার বিরুদ্ধে বিচারপ্রক্রিয়া চলেছে সেই আদালতকেই অবৈধ ঘোষণা করেছে হাইকোর্ট। বিষয়টিকে জেনারেল মুশাররফের জন্য বিশেষ স্বস্তির কারণ বলে মনে করা হচ্ছে। 

২০০৭ সালে পারভেজ মুশাররফ পাকিস্তানের সংবিধান রোহিত এবং কয়েকজন বিচারককে আটক করে রাষ্ট্রদ্রোহী কাজ করেছেন বলে দোষী সাব্যস্ত করে গত মাসে জেনারেল মুশাররফকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেয় পাকিস্তানের একটি বিশেষ আদালত। অসাংবিধানিক কর্মকান্ডের জন্য পাকিস্তানের কোনো সেনা শাসকের বিরুদ্ধে এটি ছিল প্রথম মৃত্যুদন্ডের রায় এক ধরনের ইতিহাস সৃষ্টি করেছিল। রায় দেয়ার পর জেনারেল মুশাররফ তাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে উচ্চতর আদালতে চ্যালেঞ্জ করেন। 

লাহোর হাইকোর্ট তার আবেদন গ্রহণ করে এবং বিশেষ আদালত গঠনের প্রক্রিয়াকে অসাংবিধানিক বলে রায় দিয়েছে। জেনারেল মুশাররফ বর্তমানে সংযুক্ত আরব আমিরাতের স্বেচ্ছানির্বাসনে রয়েছেন। ২০১৬ সাল থেকে বিশেষ আদালতে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার বিচার শুরু হলেও তিনি কখনো আদালতে হাজির হন নি। 

জেনারেল মুশাররফ ১৯৯৯ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের শাসন ক্ষমতায় ছিলেন। তিনি নওয়াজ শরীফের নির্বাচিত সরকারকে রক্তপাতহীন এক অভ্যুত্থানের মধ্যদিয়ে উৎখাত করে নিজে ক্ষমতা দখল করেন। 

মুশাররফের বিরুদ্ধে দেয়া মৃত্যুদন্ডের রায়কে লাহোর হাইকোর্ট বাতিল করলেও বিষয়টি এখানেই শেষ হয়ে যাচ্ছে না। চূড়ান্ত নিষ্পত্তির জন্য বিষয়টিকে সুপ্রিম কোর্টে নেয়া হবে।

আইআর /