আবরার হত্যা মামলা বিচারিক আদালতে বদলি

Published: Mon, 13 Jan 2020 | Updated: Mon, 13 Jan 2020

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলা বিচারের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। সোমবার (১৩ জানুয়ারি) ঢাকার অতিরিক্ত মহানগর হাকিম কায়সারুল ইসলাম মামলাটি বিচারিক আদালতে বদলির আদেশ দেন।

আবরার হত্যা মামলার পলাতক আসামিদের বিষয়ে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের প্রতিবেদন জমা দেওয়ার দিন ধার্য ছিল আজ। আইন অনুযায়ী মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত হওয়ায় এ মামলা মহানগর দায়রা জজ আদালতে বদলির জন্য সিএমএম বরাবর নথি পাঠান বিচারক। এখন সিএমএম মামলাটি মহানগরে পাঠাবেন। মহানগর আদালতে মামলাটির পরবর্তী বিচার কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে।

এরিমধ্যে রোববার (১২ জানুয়ারি) মামলার চার্জশিটভুক্ত পলাতক আসামি মোর্শেদ ইসলাম আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। শুনানি নিয়ে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এরআগে পলাতক চার আসামিকে আদালতে হাজির হতে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। একইসঙ্গে ১৩ জানুয়ারি আসামিরা আদালতে হাজির না হলে তাদের অনুপস্থিতিতেই মামলার বিচারকাজ শুরুরও আদেশ দিয়েছিলেন আদালত।
 
গত ৩ ডিসেম্বর আসামি মোর্শেদুজ্জামান জিসান, এহতেশামুল রাব্বি তানিম, মোর্শেদ অমর্ত্য ইসলাম ও মোস্তবা রাফিদের সম্পদ বাজেয়াপ্তের নির্দেশ দেন আদালত। এর আগে ১৮ নভেম্বর এদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

১৩ নভেম্বর ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করা হয়। অভিযুক্ত ২৫ জনের মধ্যে এজাহারভুক্ত ১৯ জন এবং এজাহারবহির্ভূত ৬ জন। বর্তমানে ২১ আসামি কারাগারে আছে। গ্রেফতারদের মধ্যে ৮ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ৬ অক্টোবর বুয়েটের শেরে বাংলা হলে আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় তার বাবা চকবাজার থানায় মামলা করেন। আবরার বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। 

-এমজে